গোলোৎসবে মাতল পিএসজি

  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০২:০৭ পিএম, ২০ জানুয়ারি ২০১৯

ঘরের মাঠ পার্ক দেস প্রিন্সেসে লিগ ওয়ানের ম্যাচে গুইনগ্যাম্পকে ৯-০ গোলের ব্যবধানে ধসিয়ে দিল পিএসজি।

এ ৯ গোলের মধ্যে রয়েছে কিলিয়ান এমবাপ্পে ও এডিনসন কাভানির একটি করে হ্যাটট্রিক। বাদ ছিলেন না দলের সুপারস্টার নেইমারও। বিশ্রাম থেকে ফেরা নেইমারের জোড়া গোল ও তমা মুনিয়েরের একটি গোলসহ ৯ বার প্রতিপক্ষের জালে বল জড়িয়েছেন তারা।

এত বড় ব্যবধানের জয়ে গুইনগ্যাম্পে ছোট করে দেখার কিছু নেই।

কেননা এই দলের কাছে হেরেই ফরাসি লিগ কাপের কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে বিদায় নিয়েছিল প্যারিস সেন্ট জার্মেই।

এবার গুইনগ্যাম্পের বিপক্ষে টমাস টুখেলের শিষ্যরা সেই প্রতিশোধ নিয়েছে বলে বলছেন ফুটবলবোদ্ধারা।

পিএসজির গোলবন্যার শুরুটা আসে নেইমারের পা থেকে।

১১ মিনিটে ব্রাজিলিয়ান তারকা দলের প্রথম গোলটি করেন। বিরতির আগেই ৩৭ ও ৪৫ মিনিটে গুইনগ্যাম্পের জালে দুবার বল জড়ান এমবাপ্পে।

দ্বিতীয়ার্ধে এসেও একই চেহারার গুইনগ্যাম্পকে দেখা গেল। এ সময় আরও আক্রমণাত্মক হয়ে খেলতে থাকে পিএসজি।

৫৯ ও ৬৬ মিনিটে জোড়া গোল করেন উরুগুয়ে তারকা কাভানি। ৬৮ মিনিটে আবারও গুইনগ্যাম্প শিবিরে হামলা করেন নেইমার।

জোড়া গোল পূর্ণ করেন তিনি। ৭৫ মিনিটে তৃতীয় গোল করে হ্যাটট্রিক করেন কাভানি। আর কাভানির দেখাদেখি ৮০ মিনিটের মাথায় হ্যাটট্রিক করেন ফরাসি তরুণ এমবাপ্পেও।

এর তিন মিনিট বাদেই শেষ গোলটি করে গুইনগ্যাম্পের কফিনে শেষ পেরেকটি ঠুকে দেন মুনিয়ের।

প্রসঙ্গত, এবারের লিগে নেইমার, কাভানি ও এমবাপ্পের মোট গোল এখন পর্যন্ত ৪৪টি।

তন্মধ্যে এমবাপ্পে ১৭, কাভানি ১৪ ও নেইমার ১৩ গোল করেছেন।

এ জয়ের পর ১৯ ম্যাচে ৫৩ পয়েন্ট নিয়ে লিগ ওয়ানের শীর্ষে অবস্থান করছে তারকাসমৃদ্ধ দল পিএসজি।

প্রিয় পাঠক, আপনিও হতে পারেন আওয়ার বাংলা অনলাইনের একজন অনলাইন প্রতিনিধি। খেলাধুলা বিষয়ে যেকোন তথ্য, প্রতিবেদন, প্রশিক্ষণ, টিপস, আপনার প্রতিষ্ঠানের খেলা সংক্রান্ত অলোচনা নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুনঃ [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন :