ভোট উপলক্ষে ফাঁকা হচ্ছে রাজধানী

  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৪:৪৬ এএম, ২৫ ডিসেম্বর ২০১৮

একাদশ সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে উত্তাপ ছড়িয়ে পড়েছে প্রার্থী ও ভোটারদের মাঝে। প্রার্থীরা চালাচ্ছেন প্রচারণা আর ভোটাররা নিচ্ছেন ভোট দেওয়ার প্রস্তুতি। সব মিলিয়ে তৈরি হয়েছে উৎসবমুখর পরিবেশ। নির্বাচনকে সামনে রেখে ইতোমধ্যে রাজধানী ছাড়তে শুরু করেছেন অনেকে। ছুটছেন গ্রামের দিকে, যারা যেখানের ভোটার। উদ্দেশ্য একটাই, ভোটের মাধ্যমে পছন্দের দল ও প্রার্থীকে নির্বাচিত করা।

এছাড়াও স্কুল, কলেজ, ইউনিভার্সিটি বন্ধ হওয়ায় অভিভাবকরা সন্তানদের নিয়ে ছুটছেন নিজ গ্রামে। তাই ব্যস্ত নগরী ঢাকা এখন অনেকটাই ফাঁকা হতে শুরু করেছে।

সোমবার (২৪ ডিসেম্বর) সকাল থেকেই রাজধানীর কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন, মহাখালী, গাবতলী, কল্যাণপুর ও সায়েদাবাদ বাসস্ট্যান্ডে বেশ ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। কেউ টিকিট কেটে সাথে সাথেই যাত্রা শুরু করছেন। আবার কেউ সংগ্রহ করছেন অগ্রিম টিকিট।

শ্যামলী পরিবহনের ফকিরাপুল-কমলাপুর জোনের ইনচার্জ মো. আলী আশ্রাফ আওয়ারবাংলাকে বলেন, ‘এখনো টিকিটের সংকট সৃষ্টি হয়নি। তবে আগামী ২৬ ও ২৭ ডিসেম্বর টিকিটের সংকট তৈরি হতে পারে। ইতোমধ্যে অগ্রিম টিকিটের রিজার্ভ প্রায় শেষ। যারা নির্বাচনের ছুটির অপেক্ষায় আছেন তারা টিকিট সংকটে পড়তে পারেন।’

ঢাকা-চট্রগ্রাম ট্রেনের অগ্রীম টিকিট নিতে কমলাপুর এসেছিলেন মো. নাঈম। তিনি আওয়ারবাংলাকে বলেন, ‘অগ্রিম টিকিট কেটে রাখছি, ভোট দিতে এলাকায় যাব।’

আরমান হোসেন নামের এক যাত্রী বলেন, ‘দশ বছর পর ভোট হচ্ছে। গত নির্বাচনে ভোট দিতে পারিনি, তাই এবার যেভাবেই হোক ভোট দিতে যাব।’

কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনের টিকিট বিক্রেতা বার্তা২৪কে জানান, তারা নির্বাচন উপলক্ষে অগ্রিম টিকিট দিচ্ছে। এখনো পর্যন্ত তাদের হাতে পর্যাপ্ত টিকিট আছে।

উল্লেখ্য, জাতিসংঘের ওয়ার্ল্ড আরবানাইজেশন প্রসপেক্টের তথ্য অনুযায়ী- ঢাকায় বর্তমানে এক কোটি ৯০ লাখ লাখ মানুষ বাস করে। যাদের মধ্যে দুই তৃতীয়াংশ জীবিকার তাগিদে ঢাকায় থাকেন।

প্রিয় পাঠক, আপনিও হতে পারেন আওয়ার বাংলা অনলাইনের একজন সক্রিয় অনলাইন প্রতিনিধি। আপনার আশেপাশে ঘটে যাওয়া ঘটনা, অপরাধ, সংবাদ নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুনঃ [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন :