বিচ্ছেদ যন্ত্রণা থেকে মুক্তির ৭ উপায়

  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৪:২৯ এএম, ০৪ ডিসেম্বর ২০১৮

হাতে হাত রেখে অনন্তকাল একসঙ্গে চলার প্রত্যয় নিয়েই শুরু হয় প্রেমের যাত্রা। সেই যাত্রায় কখনও কখনও ছেদ পড়ে। কারও সেই সম্পর্ক জোড়া লাগে আবার কারও লাগে না।

প্রেমের যাত্রায় ব্রেকআপ একটি যন্ত্রণার বিষয়। তবে সেই যন্ত্রণা দীর্ঘদিন সঙ্গী করে বেড়ালে মানসিক ও শারীরিক সমস্যা দেখা দিতে পারে।

বিচ্ছেদ যন্ত্রণা যত তাড়াতাড়ি ভোলা যায়, ততই মঙ্গল। আসুন বিচ্ছেদ যন্ত্রণা ভোলার কিছু পদ্ধতি সম্পর্কে জেনে নিই।

ব্রেক আপ মেনে নিন: সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার পর বেশিরভাগ মানুষই এটি মেনে নিতে পারেন না। সাবেক সঙ্গীর সঙ্গে আবার মিলনের আশায় থাকেন তারা। রাস্তায় হঠাৎ দেখা হওয়ার অলীক চিন্তা, ফোন করার আশায় সময় পেরিয়ে যায়।

সারা দিন আগের কথা ভেবে ভেবে সময় নষ্ট হয়। শরীরও ভেঙে যায়। তাই সব থেকে আগে প্রয়োজন পরিস্থিতি মেনে নেয়া। সম্পর্ক শেষ। এই সত্যিটা মেনে নিন। তবেই ব্রেকআপ কাটিয়ে উঠতে পারবেন।

হুট করে সম্পর্কে জড়াবেন না: অনেকে প্রেম ভুলতে নতুন সম্পর্কে জড়াতে চান। এটি সব থেকে ভুল সিদ্ধান্ত। একটি সম্পর্ক পুরোপুরি কাটিয়ে না ওঠে অন্য সম্পর্কে জড়ানো উচিত নয়। এসব সম্পর্ক কখনই টেকে না। কিছু দিন একা থাকুন। নিজেকে চিনুন। তবেই আপনি সঠিক সঙ্গী বেছে নিতে পারবেন।

দৃষ্টিভঙ্গি বদলান: যে সংস্কৃতিতে আমরা বড় হয়ে উঠেছি, যে ধরনের গান শুনেছি, সিনেমা দেখেছি তাতে ছোট থেকেই বিশ্বাস করেছি ‘প্রেম জীবনে একবারই আসে’। যদিও এই তত্ত্বের সঙ্গে বাস্তবের কোনো মিল নেই। কিন্তু নিজেদের বিশ্বাসের কারণে ব্রেকআপ হলে মনে করি সব শেষ।

এবার এই বিশ্বাস থেকে বেরিয়ে আসুন। নতুন মানুষের সঙ্গে মিশুন, নিজেকে চিনতে শিখুন।

একাকীত্বকে না বলুন: ব্রেকআপের পর আমরা নিজেদের গুটিয়ে নিই। আড্ডা, পারিবারিক অনুষ্ঠান থেকে নিজেদের দূরে সরিয়ে রেখে একা সময় কাটাতে চাই। এভাবে কিন্তু সমস্যা আরও বাড়বে। একা একা দুঃখ করলে আরও বেশি অবসাদের গভীরে চলে যাবেন। বাড়ির বাইরে বের হোন, সবার সঙ্গে সময় কাটান।

সাবেকের সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ রাখুন: সাবেক সঙ্গীর সঙ্গে যোগাযোগ একেবারে বন্ধ রাখুন। ফোন, টেক্সট থেকে বিরত থাকুন। আউট অব সাইট, আউট অব মাইন্ড তত্ত্বে বিশ্বাস রাখুন এই সময়।

স্মৃতি আঁকড়ে থাকবেন না: অনেকে সাবেক সঙ্গীর ছবি, জামা সঙ্গে নিয়ে ঘুমোতে যান। এসব ফিল্মি কাজ ছাডুন। এসব মায়া কাটাতে হবে। বরং এসব স্মৃতি ফেলে দিন।

সব শেষ নয়: আত্মকেন্দ্রিক হয়ে পড়বেন না। প্রেম চলে গেছে মানে জীবন থেকে ভালোবাসা কিন্তু চলে যায়নি। আপনার বন্ধু, পরিবার ও আত্মীয়রাও আপনাকে ভালোবাসেন। তাদের কথা ভাবুন। জীবনের আনন্দের দিক, ভালো দিকগুলোর দিকে মন দিন।

আপনার মতামত লিখুন :