বাণিজ্য মেলায় শৌচাগার বিড়ম্বনায় নারীরা

  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১০:১৩ পিএম, ১২ জানুয়ারি ২০১৯

ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার আজ চতুর্থ দিন। প্রতি বছরের ন্যায় এবারও মেলায় আগত নারীদের পড়তে হচ্ছে শৌচাগার বিড়ম্বনায়। পর্যাপ্ত পরিমাণ শৌচাগারের ব্যবস্থা থাকলেও এর প্রবেশ পথের দুই পাশে এবং ভেতরে ধূমপায়ীদের উপস্থিতিতে বিরক্ত হচ্ছেন দর্শনার্থী, বিভিন্ন প্যাভিলিয়ন ও স্টলে কাজ করা নারীরা।

শনিবার (১২ জানুয়ারি) মেলার ভেতরে স্থাপন করা শৌচাগারগুলোতে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, দুই পাশে দাঁড়ানো ধূমপায়ীরা আয়েশ করে সিগারেট টানছেন। মেলার ১৩৪ নম্বর স্টলের পাশে অবস্থিত শৌচাগারটি যেনো দখলে নিয়েছেন ধূমপায়ীরা। প্রবেশ পথের দুই পাশে দাঁড়ানো ব্যক্তিদের সিগারেটের ধোঁয়া দেখে যে কারোই মনে হতে পারে এটা কোনো ‘স্মোকিং জোন’।

বেঙ্গল মেলামাইনে কাজ করেন চৈতি নামে এক নারী। তিনি তো শৌচাগারে প্রবেশের সময় বিরক্তি নিয়ে বলেই বসলেন, ‘এক সাইডে দাঁড়ান, আজব! এভাবে দাঁড়ালে আমরা ভেতরে যাবো কিভাবে?’

এই চিত্র দেখা গেছে মেলার প্রায় সকল শৌচাগারেই। শুধু এই নারীই নন, যিনিই শৌচাগারে প্রবেশ করছেন তিনিই মুখে কাপড় চেপে ধরে প্রবেশ করছেন এবং বের হচ্ছেন। সবার চোখেমুখেই বিরক্তির ছাপ।

শৌচাগারগুলোতে নারীদের জন্য আলাদা ব্যবস্থা থাকলেও প্রবেশ পথ একটিই। মেলার ভেতরে সিগারেট বা তামাকজাত পণ্য বিক্রি নিষিদ্ধ থাকলেও প্রতিটি শৌচাগারের পাশে ছোট টেবিল নিয়ে সিগারেট বিক্রি হচ্ছে। যা নারীদের আরও বিড়ম্বনায় ফেলে দিচ্ছে।

রাজধানীর নাখাল পাড়া থেকে এসেছেন তাহমিনা আক্তার। কাজ করেন একটি আইটি ফার্মের অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার হিসেবে। তিনি বার্তা২৪কে বলেন, ‘দুই পাশে ছেলেরা দাঁড়িয়ে আছেন, সিগারেট খাচ্ছেন, এটা তো ঠিক না। মেয়েদের জন্য আলাদা টয়লেট আছে কিন্তু ভেতরে ঢোকার জন্য পথ একটাই। মেয়েদের জন্য যদি একেবারেই আলাদা হতো তাহলে ভালো হতো।’

মেলার আয়োজক কমিটির সদস্য সচিব আবদুর রউফ আওয়ার বাংলাকে বলেন, ‘মেলার মধ্যে সিগারেট বিক্রি ও পান করার বিষয়টি আমাদের নজরে এসেছে। এটা বন্ধ করার জন্য অভিযান পরিচালনো করবো। পরবর্তীতে নারী ও পুরুষদের জন্য সম্পূর্ণ আলাদা টয়লেটের ব্যবস্থা করার চেষ্টা করবো।’

এবারের বাণিজ্য মেলায় বাংলাদেশের কয়েকশত প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে। এছাড়াও ২২টি দেশ থেকে ৫২টি প্রতিষ্ঠান রয়েছে এ মেলায়। ভারত, পাকিস্তান, থাইল্যান্ড, চীন, ভিয়েতনাম, যুক্তরাষ্ট্র, আফ্রিকা, হংকং, সিঙ্গাপুর, অস্ট্রেলিয়া, জাপানসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সুনামধন্য প্রতিষ্ঠানও তাদের পণ্য নিয়ে মেলায় এসেছেন।

১ জানুয়ারি থেকে এ মেলা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও সংসদ নির্বাচনের কারণে শুরু হয় ৯ জানুয়ারি থেকে। মাসব্যাপী এ মেলা চলবে আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

প্রিয় পাঠক, আপনিও হতে পারেন আওয়ার বাংলা অনলাইনের একজন সক্রিয় অনলাইন প্রতিনিধি। আপনার আশেপাশে ঘটে যাওয়া ঘটনা, অপরাধ, সংবাদ নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুনঃ [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন :