গুজব ঠেকাতে তৎপর পুলিশ, হচ্ছে অ্যাকশন সেল

  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১০:৩৪ পিএম, ২০ ডিসেম্বর ২০১৮

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের শেষ সময়ে এসে নির্বাচনী পরিবেশ ভিন্ন খাতে যাচ্ছে বলে সন্দেহ করছেন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারীর সংস্থাগুলো। নির্বাচনী পরিস্থিতির অবনতি  ঘটাতে ‘গুজব’ হতে পারে হাতিয়ার বলে মনে করছেন তারা। তবে এই গুজব ঠেকাতে ব্যাপক তৎপর রয়েছে সংশ্লিষ্ট আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলো।

ইতিমধ্যে ভোটকে কেন্দ্র করে গুজব হতে পারে –এ রকম বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করেছে গোয়েন্দারা। সেই তথ্য পর্যাচলোনা করতে একটি ‘অ্যাকশন সেল’ গঠন করা হয়েছে। এই সেলটি গুজব যাছাই করে সত্যতা নিশ্চিত করবে। পরে পুলিশের অন্য ইউনিট সেটা মোকাবেলা করতে অ্যাকশনে যাবে।  পুলিশের এ সেলের কার্যক্রম রোববার (২৩ ডিসেম্বর) শুরু হতে পারে জানা গেছে।

পুলিশ সদর দফতরের সূত্রে জানা যায়, অ্যাকশন সেলের কাজ সম্বনয় করবে পুলিশের ৯৯৯ ইউনিট। নির্বাচন কেন্দ্রিক গুজব ছড়ালে তা সর্বপ্রথম যাচাই করবে ৯৯৯ ইউনিট। কোথাও কোনো ঘটনা ঘটলে সেটা ‘গুজব কি, গুজব না’- সেটা নিশ্চিত করবে তারা। তাছাড়া সাধারণ মানুষ গুজবের সত্যতা সম্পর্কে জানতে  এবং  জানাতেও পারবে। তারপর সে অনুযায়ী অ্যাকশনে যাবে সংশ্লিষ্ট আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

জানা যায়, গুজব যাচাই বাছাই করতে ৯৯৯ সঙ্গে আরও কাজ করবে পুলিশ সদর দফতরের ‘সোশ্যাল মিডিয়া মনিটরিং অ্যান্ড সাইবার ক্রাইম প্রিভেনশন কমিটি’ ও কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইমের সাইবার অপরাধ দমন বিভাগ।

পুলিশ সদর দফতর সূত্রে আরও জানা যায়, দেশ ও বিদেশ থেকে ফেসবুক, ইউটিউবে নির্বাচন নিয়ে কী প্রচার করা হচ্ছে, তা নজর রাখছেন সারাদেশের  পুলিশের সব শাখার কর্মকর্তারা। ঢাকার সাইবার অপরাধ দমন বিভাগও নিবিড়ভাবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে খেয়াল রাখছে।

এদিকে সিআইডির সাইবার তদন্ত বিভাগের বিশেষ সুপার মোল্যা নজরুল ইসলাম বার্তা২৪.কমকে জানায়, সিআইডি গুজব নিয়ে কাজ করছে। এ পর্যন্ত ‘গুজব’ ও মানহানিকর তথ্য প্রচারের দায়ে সৌদি আরব ছাড়াও কাতার, অস্ট্রেলিয়া, ওমান, যুক্তরাজ্য ও মালয়েশিয়ার কয়েকজন প্রবাসীকে শনাক্ত করা হয়েছে।

জানতে চাইলে ৯৯৯’র ইনচার্জ এসপি মিরাজুর রহমান পাটোয়ারী আওয়ার বাংলাকে বলেন, পুলিশ সদর দফতরের একটি সভায় গুজব যাচাই বাছাই করার জন্য এমন একটি নির্দেশনা আসে। তবে আমরা ৯৯৯ এখনও আনুষ্ঠানিক কোন চিঠি পায়নি। তবে আগামী কর্ম দিবসে এবিষয়ে লিখিত নির্দেশনা আসতে পারে। তখন থেকে আমরা গুজব যাচাই বাছাই নিয়ে কাজ করবো।

অন্যদিকে পুলিশ সদর দফতরের একাধিক সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন, বিশেষ করে নির্বাচনের দিন একটি কুচক্রী মহল নির্বাচনকে বানচাল করতে গুজব ছড়াতে পারে। কোন তুচ্ছ ঘটনাকে গুজব ছড়িয়ে নির্বাচনী পরিবেশ পরিস্থিতি অন্য দিকে ঘোরানোর অপচেষ্টা করতে পারে। সেই সব তথ্য কে যাচাই বাছাই করতে পুলিশের একাধিক ইউনিট একসাথে কাজ করবে।

প্রিয় পাঠক, আপনিও হতে পারেন আওয়ার বাংলা অনলাইনের একজন সক্রিয় অনলাইন প্রতিনিধি। আপনার আশেপাশে ঘটে যাওয়া ঘটনা, অপরাধ, সংবাদ নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুনঃ [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন :