এক মিনিটের ব্যায়ামে ৪৫ মিনিট জগিংয়ের সুফল

  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৫:৪৩ এএম, ২৯ ডিসেম্বর ২০১৮

সুস্থ থাকতে চাইলে এবং দীর্ঘ আয়ু পেতে চাইলে নিয়মিত ব্যায়ামের বিকল্প নেই। বিশেষজ্ঞরা প্রতিদিন অন্তত ৩০ মিনিট ব্যায়ামের পরামর্শ দিয়ে থাকেন। নিয়মিত শারীরিক চর্চা করলে মানসিক চাপ থেকে মুক্ত থাকা যায়। একইসঙ্গে মেলে দীর্ঘ আয়ু।

কিন্তু কর্মব্যস্ত জীবনে যদি নিয়মিত ৪৫ থেকে ৫০ মিনিট সময় বের করতে না পারেন? চিন্তার কোনো কারণ নেই। কারণ, এমন ব্যায়াম রয়েছে যা কেবল এক মিনিট করার মাধ্যমে আপনি পাবেন ৪৫ মিনিট জগিং করার সুফল। আর এই ব্যায়ামের ফলে আপনার পেশিগুলো হয়ে উঠবে আরও শক্তিশালী। এক গবেষণায় এমন তথ্যই উঠে এসেছে। তাই শীতে রাতে বিছানায় যাওয়ার আগে ঝটপট করে নিতে পারেন এক মিনিটের ব্যায়াম।

এ বিষয়ে গবেষণার জন্য, কানাডা ভিত্তিক একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা বেশি ওজনের ২৫ জন ব্যক্তি বেছে নেন। তাদের দুই ভাগে ভাগ করা হয়। প্রথম ভাগে যারা ছিলেন তাদেরকে দেওয়া হয় দ্রুতবেগে দৌড়ানোর মতো কঠোর ব্যায়াম। আর অন্য দলকে দেওয়া পার্কে জগিং করার মতো কম পরিশ্রমের ব্যায়াম। তবে এ সময় তাদের বেঁধে দেওয়া হয় যেন তারা ঘামতে বাধ্য হন।

১২ সপ্তাহ পর দেখা যায়, উভয় দলের সদস্যরা পেশি শক্তি, হৃদরোগ প্রতিরোধের মতো বিষয়ে একই রকম সামর্থ্য অর্জন করে। তাদের কোণো মৌলিক কোনো পার্থক্য দেখা যায়নি।

আসুন দুটি ব্যায়ামের কথা জেনে নেওয়া যাক যেগুলো এক মিনিট করার মাধ্যমে আপনি পাবেন ৪৫ মিনিট জগিং করা সুফল-

সিঁড়ি বেয়ে ওঠানামা- 

যেকোনো স্থানেই এ ব্যায়াম করতে পারবেন আপনি। তাই, লিফট ছেড়ে সিঁড়ি বেয়ে ওঠা-নামা করার অভ্যাস করুন। এটি আপনাকে অকাল মৃত্যুর কবল থেকে রক্ষা করবে। তবে ৮ তলার বেশি সিঁড়ি বেয়ে উঠবেন না।

দড়ি লাফ- 

হাতে একটু সময় পেলে দড়ি লাফ দিন। প্রথমে ওয়ার্ম আপের জন্য হালকাভাবে লাফান। এরপর ধীরে ধীরে গতি বাড়ান। কিছুক্ষণ বিরতি দিয়ে পুনরায় একইভাবে শুরু করুন।

এই দুটি ব্যায়াম করার মাধ্যমে আপনি দ্রুতে ওজন কমাতে এবং পেশির শক্তি বাড়াতে সক্ষম হবেন।

প্রিয় পাঠক, আপনিও হতে পারেন আওয়ার বাংলা অনলাইনের একজন অনলাইন প্রতিনিধি। লাইফস্টাইল বিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুনঃ [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন :