উপজেলা নির্বাচন প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে: সিইসি

  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৪:৪১ পিএম, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

এবারের উপজেলা নির্বাচন প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ও অংশগ্রহণমূলক হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা।

বুধবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) নির্বাচন ভবনে পঞ্চম উপজেলা নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের ব্রিফিংকালে এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

কে এম নুরুল হুদা বলেন, ‘আগের নির্বাচনের মতো এবারের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনও প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ও অংশগ্রহণমূলক হবে। সকল পক্ষের সমন্বয়ই পারে একটি সুষ্ঠু নির্বাচন সম্পন্ন করতে। উপজেলা নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হবে না।’

বেলজিয়ামের নির্বাচনের উদাহরণ টেনে তিনি বলেন, ‘ইউরোপের একটি দেশ বেলজিয়াম। সেখানে এক সময় ভোট দেয়ার হার কমে গিয়েছিল। কমে সেটা ২০ শতাংশের নিচে চলে যায়। তখন দেশটির সরকার আইন করে যে, ভোটাররা যদি ভোট না দেয়, তাহলে তাদেরকে জরিমানা করা হবে। কিন্তু ভোটাররা জরিমানা দেয়, তারপরও ভোট দেয় না।’

এ বিষয়ে সিইসি আরও বলেন, ‘বেলজিয়ামবাসী জরিমানা দিয়েও বলে যে, ভোট দেয়ার দরকার নাই। সেটা একটা সংস্কৃতি। আর আমাদের দেশের সংস্কৃতি উল্টো। আমাদের নির্বাচনে আপনারা দেখেছেন, ভোটাররা সারিবদ্ধভাবে, অত্যন্ত উৎসবমুখর-আনন্দঘন পরিবেশে নির্বাচন কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দেয়ার জন্য উপস্থিত থাকেন।’

ভোটাররা যাতে তাদের ভোটাধিকার সঠিকভাবে প্রয়োগ করতে পারেন, সে ব্যাপারে উপস্থিত রিটার্নিং কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন সিইসি। সেই সঙ্গে তাদেরকে উপজেলা নির্বাচনের প্রয়োজনীয় আইন-কানুনও ভালোভাবে জেনে নেয়ার পরামর্শ দেন তিনি।

এ সময় নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার, কবিতা খানম, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মাহবুব তালুকদার ও রফিকুল ইসলাম, ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ রিটার্নিং কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের দিক-নির্দেশনা দেন সিইসি।

প্রিয় পাঠক, আপনিও হতে পারেন আওয়ার বাংলা অনলাইনের একজন সক্রিয় অনলাইন প্রতিনিধি। আপনার আশেপাশে ঘটে যাওয়া ঘটনা, অপরাধ, সংবাদ নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুনঃ [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন :