আন্দামান সাগরে অবস্থান করছে ঘূর্ণিঝড় পাবুক

  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৯:৩৭ এএম, ০৬ জানুয়ারি ২০১৯

থাইসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘পাবুক’ বর্তমানে আন্দামান সাগরে অবস্থান করছে। শনিবার বিকাল নাগাদ এটি বাংলাদেশ থেকে গড়ে দেড় হাজার কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে। তবে সেটি কোন দেশে আঘাত করতে পারে, শনিবার রাত পর্যন্ত তা নিশ্চিত করেনি আবহাওয়া অধিদফতর (বিএমডি)। ওই ঝড়টির কারণে বাংলাদেশের সমুদ্রবন্দরগুলোতে ২ নম্বর দূরবর্তী হুঁশিয়ারি সংকেত জারি করা হয়েছে।

এদিকে কয়েকদিন বাদে শনিবার শীতের দাপট একটু কমেছে। শুক্রবারও পঞ্চগড় জেলার ওপর দিয়ে তীব্র শৈতপ্রবাহ বয়ে যায়। কিন্তু শনিবার পঞ্চগড়সহ দেশের অন্যান্য শীতপ্রবণ অঞ্চলে এর মাত্রা কমে ‘মৃদু থেকে মাঝারি’ আকারে নেমে এসেছে। শীতের মাত্রা কমলেও শীতপ্রবণ এলাকার সংখ্যা অবশ্য বেড়েছে। এদিন টাঙ্গাইল, ফরিদপুর, মাদারীপুর, গোপালগঞ্জ, ময়মনসিংহ, সীতাকুণ্ড, মৌলভীবাজার, রাজশাহী, পাবনা, নওগাঁ, দিনাজপুর, সৈয়দপুর, পঞ্চগড়, কুড়িগ্রাম, খুলনা, সাতক্ষীরা, যশোর, চুয়াডাঙ্গা, ভোলা ও বরিশাল অঞ্চলগুলোর ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যায়। এটা অব্যাহত থাকতে পারে।

আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছেন, তাপমাত্রা ৬ থেকে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস হলে তাকে ‘মাঝারি’ মাত্রার শৈত্যপ্রবাহ বলে। তাপমাত্রা যদি ৪ থেকে ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নামে তবে তা ‘তীব্র’ শৈত্যপ্রবাহ। আর ৮ থেকে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রাকে বলে ‘মৃদু’ শৈত্যপ্রবাহ। বিএমডির বিজ্ঞপ্তি বলেছে, উপমহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন বাংলাদেশের এলাকা পর্যন্ত বিস্তৃত।

এ কারণে সারা দেশে শীতের অনুভূতি বেড়েছে। শীতের সঙ্গে দেশের বিভিন্ন স্থানে কুয়াশার প্রকোপ বেড়েছে। বিদ্যমান পরিস্থিতিতে আজ সন্ধ্যা পর্যন্ত আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, সারা দেশে রাতের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে ও দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

প্রিয় পাঠক, আপনিও হতে পারেন আওয়ার বাংলা অনলাইনের একজন সক্রিয় অনলাইন প্রতিনিধি। আপনার আশেপাশে ঘটে যাওয়া ঘটনা, অপরাধ, সংবাদ নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুনঃ [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন :