অনির্দিষ্টকালের জন্য কারখানা বন্ধের হুমকি বিজিএমইএ‘র

  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০১:৫৫ পিএম, ১৩ জানুয়ারি ২০১৯

সোমবার (১৩ জানুয়ারি) থেকে পোশাক শ্রমিকরা কারখানায় কাজ না করলে কোনো মজুরি প্রদান করা হবে না। শ্রম আইনের ১৩ এর ১ ধারা অনুযায়ী অনির্দিষ্টকালের জন্য গার্মেন্টস কারখানা বন্ধ করে দেওয়া বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন বিজিএমইএ’র সভাপতি মোঃ সিদ্দিকুর রহমান।

রোববার (১৩ জানুয়ারি) কাওরান বাজারে দুপুরে বিজিএমইএ‘র প্রধান কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি শ্রমিকদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, আগামীকাল থেকে যদি কারখানায় আপনারা কাজ না করেন তাহলে কোনো মজুরি দেওয়া হবে না। অনির্দিষ্টকালের জন্য কারখানা বন্ধ করে দেওয়া হবে। এই প্রথম আমরা এ ধরনের নির্দেশনা দিচ্ছি। মজুরি কাঠামোতে বৈষম্য আছে বলে শ্রমিকদের উসকানি দিয়ে পোশাক শ্রমিকদের অশান্ত করা হচ্ছে। মজুরি কাঠামো নিয়ে আন্দোলনের কোনো যৌক্তিকতা নেই। একটি স্বার্থান্বেষী মহল এই অরাজক পরিস্থিতির সৃষ্টি করছে। এই শিল্প নিয়ে ছিনিমিনি খেলবেন না। কারখানা বন্ধ হয়ে গেলে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্থ হবেন শ্রমিকরাই।

তিনি আরো বলেন, এ অস্থিতিশীলতার কারণে আন্তর্জাতিক বাজারে যে ইমেজ সংকট তৈরি হয় তা অপূরণীয়। প্রচুর আর্থিক ক্ষতি হয়। মজুরির কাঠামো নিয়ে ভিন্নমত থাকলে তা নিয়ে ত্রিপক্ষীয় কমিটি কাজ করছে। তার জন্য আন্দোলন, ভাঙচুর করার প্রয়োজনীয়তা নেই। এসব মোটেও কাম্য নয়। আপনাদের জন্য কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হতে পারে এমন আর কোনো খাত গড়ে উঠেনি। যারা এর পেছনে আছে তাদের শাস্তির আওতায় এনে বিচারের দাবি করছি সরকারের কাছে।

এ সময় সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন এফবিসিসিআই এর সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন, বিজিএমইএ-এর সাবেক সভাপতি আবদুস সালাম মুর্শেদী, আতিকুল ইসলাম, বিজিএমইএ এর সহ-সভাপতি মোহাম্মদ নাসির।

প্রিয় পাঠক, আপনিও হতে পারেন আওয়ার বাংলা অনলাইনের একজন সক্রিয় অনলাইন প্রতিনিধি। আপনার আশেপাশে ঘটে যাওয়া ঘটনা, অপরাধ, সংবাদ নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুনঃ [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন :